• ঢাকা
  • |
  • বুধবার ১৬ই অগ্রহায়ণ ১৪২৯ বিকাল ০৫:১৮:৩৩ (30-Nov-2022)
  • - ৩৩° সে:
এশিয়ান রেডিও

ব্যবসা-বাণিজ্য

শাহরাস্তিতে ২৫০ শতক জমিতে মিশ্র ফল চাষে সফলতা অর্জন

৩রা অক্টোবর ২০২২ সন্ধ্যা ০৭:২৪:০৫

ফাইল ছবি

মোঃ জামাল হোসেন (চাঁদপুর প্রতিনিধি) : চাঁদপুরের শাহরাস্তি উপজেলার পানচাইল গ্রামের সমাজসেবক মোঃ জাহাঙ্গীর আলম তালুকদার। বিভিন্ন মিশ্র ফল চাষে  সফলতা অর্জন করেছেন। দিন বদলের আশায় ২৫০ শতক জমির মধ্যে শুরু করেন উন্নত জাতের আম, মালটা, লেবু ও ড্রাগন ফলের চাষ। অদম্য পরিশ্রম আর কৃষির প্রতি ভালো লাগা কাজে লাগিয়ে সফলও হয়েছেন দ্রুত। পাশাপাশি অন্যদেরও সুযোগ হয়েছে কর্মসংস্থানের। উপজেলার অন্য কৃষকরাও এই ধরনের মিশ্র ফল বাগান করে নিজেদের ভাগ্য বদলাতে আগ্রহী।

জানা যায়  শাহরাস্তি উপজেলার চিতোষী পূর্ব ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ডের পানচাইল গ্রামের মোঃ জাহাঙ্গীর আলম তালুকদার ১ হেক্টর জমিতে মিশ্র ফল বাগান করেন। গত ১৮ জুলাই ২০১৮ সালে প্রথমদিকে শুরু করেন উন্নত জাতের আম, মালটা এবং লেবু চাষ। বছর ঘুরতে না ঘুরতেই বাগানে বাম্পার ফলন দেখা গেছে। পরে আম, লেবু, মালটা এবং ড্রাগনের মিশ্র ফল চাষ করেন। গাছে থোকায় থোকায় মালটা ও ড্রাগন ফলে ভরে গেছে। মোঃ জাহাঙ্গীর আলম তালুকদারের এই সাফল্যে ইতোমধ্যেই এলাকায় ব্যাপক সাড়া ফেলেছে। এলাকার অনেক যুবক মিশ্র ফল চাষ হিসেবে আম, ড্রাগন ও মালটা চাষে আগ্রহী হচেছ। এলাকার অনেকেই এই ড্রাগন ও মালটা ফল বাগান দেখতে আসছেন। অনেকে তাদের জমিতেও এই মিশ্র ফল বাগান করতে আগ্রহী।

মোঃ জাহাঙ্গীর আলম তালুকদার জানান পারিবারিক ফলের চাহিদা পূরণের লক্ষ্যে   আমি সখের বসে বাগান করতে আগ্রহী হয়ে, মিশ্র আম, লেবু, মালটা ও ড্রাগন ফল চাষ করি। পরবর্তীতে উপ-সহকারী কৃষি অফিসার মোঃ মকবুল হোসেনের পরামর্শে নতুন নতুন জাতের আম, মাল্টা, লেবু চাষে আগ্রহী হই। দুই বছর পরে আম মালটা লেবুতে সফলতা পেয়ে ড্রাগন চাষে উদ্বুদ্ধ হই। আম, মাল্টা, লেবু, ড্রাগন ছাড়াও প্রচলিত অপ্রচলিত প্রায় ২০ রকমের ফল আছে আমার বাগানে।  কৃষি বিভাগের পরামর্শ অনুযায়ী পরিচর্যা করায়, আমি এই মিশ্র ফল বাগান থেকে  বছরে সকল খরচ বাদ দিয়ে প্রায় ৭ লক্ষ টাকা আয় করি। বাগানের বয়স বৃদ্ধির সাথে সাথে আয় বৃদ্ধির আশা করছি। আগামীতে আরো ১-২ হেক্টর ফল বাগান বৃদ্ধির পরিকল্পনা। পাশাপাশি ফলের চারার কাটিং অন্যান্য কৃষকের মাঝে বিতরনের ভাবনা রয়েছে। মিশ্র ফল বাগানটি পরিচালনা করেন মোঃ কামাল হোসেন খোকা।

সংশ্লিষ্ট কৃষিবিদ উপজেলা কৃষি অফিসার মোঃ আহসান হাবিব জানান এনএটিপি প্রকল্প থেকে মিশ্র ফল বাগান প্রদান করি। পরবর্তীতে মোঃ জাহাঙ্গীর আলম তরফদার নিজস্ব অর্থায়নে বাগান সম্প্রসারণ করে এবং তাকে সকল পরামর্শ ও সহযোগিতা করেন সংশ্লিষ্ট ব্লকের উপ-সহকারী কৃষি অফিসার মোঃ মকবুল হোসেন।  নতুন উন্নত জাতের ফলদ বৃক্ষ রোপণ, ফল বাগান সম্প্রসারণ, ফল গাছের পরিচর্যা সহ রোগ বালাই দমনে আমরা নিয়মিত কৃষকদের পরামর্শ প্রদান ও উৎসাহ প্রদান করছি। এবং মিশ্র ফল চাষে  সফলতা অর্জন করেছেন। কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর থেকে আমাদের সার্বিক সহযোগিতা থাকবে।

সর্বশেষ সংবাদ

ওসি দিপুর কন্যা রাইসা জিপিএ ফাইভ পেয়েছেন 
৩০শে নভেম্বর ২০২২ সকাল ১১:৩২:৩১


সাংবাদিক কন্যা মুবাশ্বিরা পেলেন জিপিএ-৫
২৯শে নভেম্বর ২০২২ বিকাল ০৫:৪৫:৫৮

আমাদের অনেক যুদ্ধ করতে হয়: লিপি ওসমান
২৯শে নভেম্বর ২০২২ বিকাল ০৫:৩৭:৪৯

খুনিদের সাথে কিসের আলোচনা : শামীম ওসমান
২৮শে নভেম্বর ২০২২ রাত ০৮:২৪:৫৩

নৌ-যান শ্রমিকদের ১০ দফা দাবি নিয়ে ধর্মঘাট পালন 
২৮শে নভেম্বর ২০২২ সন্ধ্যা ০৬:২০:৩৪

শ্রীপুরে অনুমোদনহীন বিদেশী ঔষুধ উদ্ধার
২৮শে নভেম্বর ২০২২ বিকাল ০৩:০০:৫০

নারায়ণগঞ্জে ডিজিটাল উদ্ভাবনী মেলার উদ্বোধন
২৭শে নভেম্বর ২০২২ সন্ধ্যা ০৭:৫২:২০



ASIAN TV